HOT POST

বিনা টাকায় ফেসবুকে প্রমোট এবং বুস্ট করুন [সবাই পারবেন ]

Image
বিনা টাকায় ফেসবুকে প্রমোট এবং বুস্ট করুন!
লেখার শুরুতে আমি বলেছি "বিনা টাকা" তবে "বিনামূল্য" বলিনি; শুধু ভার্চুয়াল নয় বরং রিয়েল লাইফেও ইফেক্টিভ কিছু পেতে হলে আপনাকেও বিনিময়ে কিছু দিতেই হবে.....
কি দিবেন আপনি???
মাথার মেরিট, সময় আর শ্রম; বস্তুত "টাকা" এর সুপার অল্টারনেটিভ হলো এই তিনটি সাবজেক্ট!!!
মনে করুন, আপনি বিনা টাকাতে আপনার একটি ফেসবুক পেইজ প্রমোট করতে চান কিংবা কোন পোস্ট বুস্ট করতে চান তাহলে কি করবেন?
সবার আগে আপনার ফেসবুক আইডির ফ্রেন্ডলিস্ট ঘেটে ঘেটে অন্তত ১০ জন ক্লোজ ফ্রেন্ডকে খুজে বের করুন যাদের আইডিতে রিচ ভালো।
এবার তাদেরকে অনুরোধ করুন আপনার পেইজটি কিংবা পোস্ট'টি যেন তারা টাইমলাইনে পোস্টের মাধ্যমে প্রমেট করে দেয়।
ধুর ধুর ধুর....কি আজাইরা আলাপ; এইটা কোন ইফেক্টিভ টেকনিক হইলো নাকি...যত্তোসব!!!
আচ্ছা চলুন এইবার মাথা খাটিয়ে আরেকটু চিন্তা করি; ফ্রি প্রমোট করার প্রমোদ হবেই হবে....
মনে করি আপনি ১০ জন ক্লোজ ফ্রেন্ডকে আপনার উক্ত পেইজ/পোস্ট প্রমোট করতে কনভিন্স করতে পেরেছেন, যাদের প্রত্যেকের আইডিতে ৫০০০ একটিভ ফ্রেন্ড ( ম্যাক্সিমাম বিবেচনা করা হলো) তাহলে ১০…

কারেন্টের শক খেলে সাথে সাথে যা করনীয় ৷

কারেন্টের শক খেলে সাথে সাথে যা করবেন

বাসা বাড়িতে এখন ইলেকট্রিক  সংযোগ বা যন্ত্রপাতির তো শেষ নেই । বরং যতই দিন যাচ্ছে তা আরও বাড়ছে, সাথে বাড়ছে কারেন্টের তারের প্যাঁচ । হুটহাট অসাবধানতায়  ইলেকট্রিক শক খাওয়ার কাহিনীও তেমন একইভাবে বেড়ে চলছে। তাই ইলেকট্রিক দুর্ঘটনার ব্যপারে জানা থাকা খুব জরুরী। একটু সচেতনতা অনেক সময় অনেক বড় বিপদ থেকে বাঁচাতে পারে আপনাকে বা আপনার প্রিয়জনকে।

চলুন আজ দেখে নেই যদি আপনি বা আপনার প্রিয়জন যদি কারেন্টের শক খান তাহলে সাথে সাথে কিভাবে তাদের বাঁচাবেন  :



কেউ কারেন্টে শক হলে প্রথমেই তার গায়ে হাত দিতে যাবেন না। তাকে তো বাঁচাতে পারবেনই না, বরং আপনিও একই সাথে বৈদ্যুতিকস্পৃষ্ট হবেন।


প্রথমেই কারেন্টের সুইচ বন্ধ করে দেয়ার চেষ্টা করুন। যদি এতে কাজ না হয় তাহলে শুকনো খবরের কাগজ, উলের কাপড়, শুকনো কাঠের টুকরা অথবা রাবার দিয়ে ইলেকট্রিক শক খাওয়া ব্যক্তিকে থেকে ধাক্কা দিয়ে ইলেকট্রিক শকের উৎস থেকে আলাদা করতে হবে। যদি কিছুতেই কাজ না হয়, তাহলে দ্রুত বৈদ্যুতিকঅফিসে খবর দিন।


শক খাওয়া ব্যক্তির শ্বাস বন্ধ হয়ে গেলে দ্রুত তাকে কৃত্রিম শ্বাস-প্রশ্বাস দেয়ার ব্যবস্থা করুন। সাধারণত বলা হয় যে ৩ মিনিট এর ভিতর কৃত্রিম শ্বাস -প্রশ্বাস এর ব্যবস্থা করা গেলে ১০ জন এর ভেতর ৭ জন কে বাঁচানো সম্ভব।দেরি করলে বাঁচানোর সম্ভাবনা কমে আসে। এমন জরুরী মুহূর্তে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার ওপর আক্রান্ত ব্যক্তির বেঁচে থাকার সম্ভাবনা নির্ভর করে। একই সাথে রোগীকে দ্রুত হাসপাতালে নেয়ার ব্যবস্থাও করুন।


শক খাওয়া ব্যক্তির হৃদপিণ্ড যদি বন্ধ হয়ে যায় তবে তার বুকের ওপর জোরে জোরে চাপ দিতে হবে ৷


যদি শক খাবার পরও শ্বাস প্রশ্বাস স্বাভাবিক থাকে তবে খুব বেশি ভয়ের কিছু নেই। রোগীকে শুয়ে থাকতে বলুন এবং পরীক্ষা করার জন্য ডাক্তারকে খবর দিন।


ইলেকট্রিক সামগ্রী অনেক সময় ভেতর নষ্ট বা ডেমেজড হয়ে শর্ট সার্কিট হয়ে বিপদজনক হতে পারে, যার ফলে দুর্ঘটনার শিকার অনেকেই হন। এই ক্ষেত্রে নিয়মিত ইলেকট্রিক যন্ত্রপাতি যেমন ফ্রিজ, এসি, ওভেন ইত্যাদি একজন দক্ষ মেকানিক দিয়ে পরীক্ষা করিয়ে রাখাটা জরুরী।এ ছাড়াও হুট করে কখন ইলেকট্রিক যন্ত্র নষ্ট হয়ে যায় তা বলা কঠিন।

যদি ইদানীং আপনার ফ্রিজ এসি ওভেন চেক করিয়ে না থাকেন তবে আপনার জন্য সুখবর। সেবাতে শুরু হয়েছে জমজমাট রিপেয়ার মেলা !  মেলা উপলক্ষে সেবা দিচ্ছে ফ্রিজ এসি ওভেন এবং ওয়াটার পিউরিফায়ার চেক একদম ফ্রি তে। দক্ষ এবং ভেরিফাইড টেকনিশিয়ান আপনার বাসায় এসে চেক করে দিয়ে যাবে এবং আপনাকে কোনও ভিজিট চার্জ পর্যন্ত দিতে হবে না। যন্ত্রের কোথায় কি সমস্যা বা কোথায় ডায়াগনসিস প্রয়োজন তা টেকনিশিয়ান বলে দিবে আপনাকে।

তাহলে আর কেন দেরি, চলে আসুন সেবার রিপেয়ার  মেলায়, প্রিয়জনদের ভালবাসায় বছরজুড়ে থাকুন নিশ্চিন্তে !

Comments

Popular posts from this blog

বিনা টাকায় ফেসবুকে প্রমোট এবং বুস্ট করুন [সবাই পারবেন ]

আপনার Android ফোনেটিকে IPHONE এর মতো বানিয়ে ফেলুন ৷ 5MB একটি android এপছ দিয়ে।

Responsive Palki 2 Blogger Premium Templat For Free 2019